বেঙ্গল শাস্ত্রীয়সংগীত উৎসবে নিরাপত্তার স্বার্থে কঠোর নিয়ম


বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আগামী ২৭ নভেম্বর ২০১৫ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে চতুর্থ বেঙ্গল শাস্ত্রীয়সংগীত উৎসব। পাঁচ দিনের এই উৎসবে নিরাপত্তার স্বার্থে এবারে বাড়তি কড়াকড়ি করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, জনসমাগমের দিক থেকে এটি বিশ্বের বৃহত্তম ভারতীয় শাস্ত্রীয়সংগীতের আসরগুলোর একটি। এই আসরে দেশি-বিদেশী শতাধিক শিল্পী অংশ নিয়ে থাকেন। প্রতিদিন প্রায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার মানুষ উৎসবে উপস্থিত থাকেন। বর্তমান আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিবেচনা করে এই বিপুল সংখক মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দর্শক-শ্রোতাদের জন্য নিয়ম কানুনে কঠোরতা আনা হয়েছে।

বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইটে নিরাপত্তা বিষয়ক এক নোটিশে বলা হয়েছে যে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নির্দেশনা অনুযায়ী উৎসবস্থলে কোন ধরনের ব্যাগ বা ক্যামেরা নিয়ে আসা যাবে না। বাইরে ব্যাগ রেখে ঢোকারও কোন ব্যবস্থা থাকবে না। ওয়েবসাইটে প্রকাশিত নির্দেশনাগুলো নিম্নরূপ:

১. পুরুষ দর্শক-শ্রোতাদের প্রতি মোবাইল ফোন, মানিব্যাগ এবং চাবি (যেগুলো তাঁরা পকেটে রাখতে পারেন) ছাড়া অন্য কোন কিছু উৎসবস্থলে না আনার অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।
২. মহিলাদেরকে ১০ ইঞ্চি দৈর্ঘ্য ও ৬ ইঞ্চি প্রস্থের পার্সের চাইতে বড় আকারের পার্স (যেখানে তাঁরা মোবাইল ফোন, টাকা ও চাবি রাখতে পারেন) না আনার অনুরোধ জানানো হচ্ছে।
৩. কোন ধরনের খাবার ও পানীয় উৎসবস্থলে আনা যাবে না।
৪. সব ধরনের তামাকজাত দ্রব্য নিষিদ্ধ।
৫. উৎসবস্থলে বারবার প্রবেশ করা যাবে না। একবারের বেশি পুনঃপ্রবেশ অনুৎসাহীত করা হচ্ছে।
৬. ভিতরে কার রাখা যাবে না। সুতরাং যারা নিজস্ব গাড়িতে করে যাবেন তাদেরকে গেইটের বাইরেই গাড়ি থেকে নামতে হবে। বয়োজ্যেষ্ঠদের জন্য বিশেষভাবে এই নিয়ম শিথিল করা হবে।

সাতদিন/এমজেড

২৪ নভেম্বর ২০১৫

সঙ্গীত

 >  Last ›