টেলিফিল্ম- একজন বিখ্যাত ব্যাক্তির মৃত্যুর পর

৯ জানুয়ারি দুপুর ২টা ৫০ মিনিট চ্যানেল নাইন

রচনা ও পরিচালনা- শাহরিয়ার নাজিম জয়
অভিনয়- শহিদুজ্জামান সেলিম, তারিন, মৌসুমি নাগ, শামস সুমন, শাহাদাৎ হোসেন, ডলি জহর এবং শাহরিয়ার নাজিম জয়

দেশের একজন স্বনামধন্য নির্মাতা মৃত্যুর পর যখন সাংবাদিকরা তার লাশ ঘিরে ছবি তুলছে, তার স্ত্রীর ইন্টারভিউ নিচ্ছে তখন সময়ের সবচেয়ে আলোচিত নায়িকা সেখানে উপস্থিত হয়ে নির্মাতার লাশের চোখে নিথর দৃষ্টিতে তাকিয়ে দু’ফোটা অশ্রু ফেলে। সাংবাদিকরা তার অনুভুতির কথা জানতে চাইলে সে বলে এটা মৃত্যু নয় আত্মহত্যা। সাংবাদিকরা প্রশ্ন করে, এই আত্মহত্যার জন্য তিনি কী কাউকে সন্দেহ করছেন? উত্তরে তিনি বলেন ঘরেও তো শক্রু থাকতে পারে। শুরু হয় বিখ্যাত নির্মাতার মৃত্যুর পর তার স্ত্রী এবং সময়ের সবচেয়ে আলোচিত নায়িকার (যার সাথে মৃত নির্মাতার প্রনয়ের সম্পর্ক ছিলো বলে পত্রিকায় কয়েকবার রিপোর্টও এসেছিলো) মধ্যে দ্বন্ধ। টকশোতে কখনো স্ত্রী তার অবস্থান পরিস্কার করেন, নিজেকে নির্দোধ প্রমানিত করেন। কখনো সময়ের আলোচিত নায়িকা চৎবংং ঈড়হভধৎবহপব করে স্ত্রীকে বিখ্যাত নির্মাতার মৃত্যুর জন্য দায়ী করে প্রমান সহ। সাধারন মানুষের মনে যখন দ্বিধাদ্বন্ধ তৈরী হয় তখন স্ত্রী ছুটে যায় সময়ের আলোচিত নায়িকার বাড়ীতে। এর আগ পর্যন্ত মাঝে মাঝেই ঋষধংয ইধপশ এ বিখ্যাত ব্যক্তির স্ত্রী এবং নায়িকার চড়রহঃ ড়ভ ঠরবি থেকে নির্মাতার সাথে দুজনের আলাদা আলাদা সম্পর্ক গুলো দেখবো। স্ত্রীর চড়রহঃ ড়ভ ঠরবি থেকে ঋষধংয ইধপশ এ গেলে মনে হবে স্ত্রী খুবই ভালো ছিলো। ওদের সম্পর্ক ছিলো খুবই ভালো। আবার নায়িকার চড়রহঃ ড়ভ ঠরবি থেকে যখন ঋষধংয ইধপশ এ যাবো তখন মনে হবে নির্মাতা তার স্ত্রী অসহ্য জ্বালাতনে না পারতো কাজ করতে না পারতো বাড়ী ফিরে শান্তি মতো ঘুমাতে। এই রকম একটা ধু¤্রজাল পরিস্থিতিতে স্ত্রীটি নায়িকার বাড়িতে গিয়ে স্বীকার করবে সে তার স্বামীকে খুন করেছে। কিন্তু সেই খুনের জন্য দায়ী সেই নায়িকা। পুরোটা সময় নির্মাতার স্ত্রীকেই খুনী মনে হলেও আসলে সে খুনটা করেনি। তাহলে খুনটা করলো কে ?
৯ জানুয়ারি দুপুর ২টা ৫০ মিনিটে চ্যানেল নাইনে প্রচারিত হবে বিশেষ টেলিফিল্ম “একজন বিখ্যাত ব্যাক্তির মৃত্যুর পর”। টেলিফিল্মটি রচনা ও পরিচালনায়: শাহরিয়ার নাজিম জয় এবং অভিনয়: শহিদুজ্জামান সেলিম, তারিন, মৌসুমি নাগ, শামস সুমন, শাহাদাৎ হোসেন, ডলি জহর এবং শাহরিয়ার নাজিম জয়।


নাটক

 >  Last ›