শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব

২৪ থেকে ৩০ জানুয়ারি

২৪ জানুয়ারি থেকে দেশের ৩টি বিভাগীয় শহরের ১২টি ভেন্যুতে শুরু হচ্ছে অষ্টম আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব। ৭টি বিভাগীয় শহরে একযোগে শুরু হওয়ার কথা থাকলও রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে তা বাতিল হয়। উৎসবের মূল ভেন্যু ঢাকার শাহাবাগে অবস্থিত জাতীয় গণগ্রন্থাগার-এর শওকত ওসমান মিলনায়তন। এ ছাড়া ঢাকার অন্য ভেন্যুগুলো হল— জাতীয় জাদুঘর, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, ব্রিটিশ কাউন্সিল, আলিয়ঁস ফ্রঁসেস ও ডেফডিল ইন্টারনেশনাল ইউনিভার্সিটি। চট্টগ্রামের ভেন্যুগুলো হল— থিয়েটার ইনস্টিটিউট, আলিয়ঁস ফ্রঁসেস দ্য চিটাগং, হলি ফেমিলি টিউটরিয়াল স্কুল, ফুলকি এবং পোর্ট কলনি সবুজ সংঘ ক্লাব। এই বাইরে সিলেট-এর সিলেট মিলনায়তনে উৎসবের অংশ হিসেবে চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। প্রতিদিন বিকাল ৩টা, বিকাল ৫টা ও সন্ধ্যা ৬টায় ভেন্যুগুলোতে প্রদর্শনী চলবে।

২০০৮ সাল থেকে বাংলাদেশে নিয়মিতভাবে আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এই উৎসবে বিশ্বব্যাপী শিশুদের জন্য নির্মিত এবং শিশুদের দ্বারা নির্মিত চলচ্চিত্র ও প্রামাণ্যচলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়ে থাকে। প্রদর্শনী শেষে বিভিন্ন ক্যাটাগরি থাকছে পুরস্কার। শিশু চলচ্চিত্রনির্মাতা শাখায় থাকছে ৫টি পুরস্কার—সেরা চলচ্চিত্র, ২য় সেরা চলচ্চিত্র, ৩য় সেরা চলচ্চিত্র এবং দুটি বিশেষ পুরস্কার। আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র নির্মাতা শাখায় থাকছে তিনটি পুরস্কার—সেরা পরিচালক, সেরা চলচ্চিত্র ও সেরা সল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র। তরুণ বাংলাদেশী চলচ্চিত্রনির্মাতা শাখায় থাকছে একটি পুরস্কার—তরুণ প্রতিভা পুরস্কার। সামাজিক শাখায় দেওয়া হবে একটি সামাজিক চলচ্চিত্র পুরস্কার।

সাতদিন/এমজেড/২২জানুয়ারি২০১৫


প্রদর্শনী

 >  Last ›