জাতীয় নৃত্যনাট্য উৎসবে

ভানু সিংহের পদাবলী

পরিবেশনায়: ভাবনা

৩০ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টা

মূল মিলনায়তন, শিল্পকলা একাডেমি, ঢাকা

ব্রজবুলী ভাষায় রচিত ‘“ভানু সিংহের পদাবলী’ কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কিশোর বয়সের সৃষ্টি। বৈষ্ণব কবিদের ধাঁচে পদাবলীগুলো তিনি রচনা করেন ১৮৭৭ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ১৮৮৪ খিষ্ট্রাব্দ-এর মধ্যে যখন তাঁর বয়স ছিল ১৬ থেকে ২৩ বছর। পদাবলী মূলত রাধাকৃষ্ণের লীলাবিষয়ক আখ্যান গীত। প্রাচীন পদকর্তাগণ ব্রজের রাখাল কৃষ্ণ ও রাধার প্রেমলীলাকে নাট্যরূপ দিতে গিয়ে পদাবলীকে পূর্বরাগ, মিলন, মান-অভিমান, অভিসার বিরহ মাথুব ইত্যাদি বিভিন্ন পালায় ভাগ করেন।

শান্তি নিকেতনের সঙ্গীত গুরু শৈলজারঞ্জন মজুমদার “ভানুসিংহের পদাবলী”কে গীতিনৃত্যনাট্যে রূপ দান করেন। তবে ‘ভাবনা’ প্রযোজিত পরিবেশনা ‘ভানুসিংহের পদাবলী’র আরেকটি পুনর্বিন্যস্ত নাট্যরূপ। ভানুসিংহের গান ও কবিতাগুলো পুনর্বিন্যাস করেন বিশ্বভারতীর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত তরুণ শিল্পী আযিযুর রহমান তুহিন। সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন সুমন সরকার, সঙ্গীতে কন্ঠ দান করেন সুপ্রতীক দাস, মিতা হক এবং সহশিল্পীবৃন্দ এবং এর নৃত্যরূপায়ন করেন তরুণ ও প্রতিভাবান নৃত্যশিল্পী ভাবনার পরচালক সামিনা হোসোন প্রেমা। নাচগুলো মূলতঃ রবীন্দ্র নৃত্যধারায় পরিচালিত যা মনিপুরী, ভরতনাট্যম, ওড়িষি সহ বিভিন্ন উচ্চাঙ্গ নৃাত্যর সুষ্ঠু প্রয়োগে একটি সৃজনশীল রূপ ধারণ করেছে। নৃত্যনাট্যে কৃষ্ণের ভূমিকায় দেখা যাবে আবু নাইমকে এবং রাধার ভূমিকায় থাকছেন সামিনা হোসোন প্রেমা। কন্ঠসংগীতে থাকছেন মিতা হক ও সুপ্রতীক দাস।

সাতদিন/এমজেড/২৯জানুয়ারি২০১৫


প্রদর্শনী

 >  Last ›