জাতীয় নৃত্যনাট্য উৎসবে

ফিরায়ে আনিব তোরে

পরিবেশনায়: বাংলাদেশ নৃত্যশিল্পী সংস্থা, রাজশাহী

৩০ জানুয়ারি রাত ৮টা

মূল মিলনায়তন, শিল্পকলা একাডেমি, ঢাকা

মৈত্র মহাশয় তীর্থস্নানে যাচ্ছেন সঙ্গীদল’সহ। বিধবা মোক্ষদার বারম্বার অনুরোধে, নৌকায় স্থান সঙ্কুলান প্রায় না হওয়া সত্বেও মোক্ষদাকে তীর্থযাত্রায় সাথে নিতে সম্মত হন। যাত্রা সময়ে মোক্ষদার একমাত্র পুত্র সন্তান রাখাল তার সাথে যাবার জন্য অসম্ভব জেদ করলে, মোক্ষদা রেগে গিয়ে বলে ওঠে “চল, তোরে দিয়ে আসি সাগরের জলে।”

তীর্থস্নান শেষে ফিরবার সময় হঠাৎ ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের কবলে পতিত হয় নৌকা। সন্দেহ করা হয় তীর্থযাত্রায় কেউ হয়তো মানত শোধ করেনি, তাই অসময়ে এই তুফান। ব্রাহ্মণ মোক্ষদাকে তার পুত্র সাগরের জলে সমর্পণের কথাটি স্মরণ করিয়ে দেন। মোক্ষদা তার পুত্রকে রক্ষার জন্য আকুল অনুরোধ করার সময় মাঝিরা জোর পূর্বক রাখালকে সাগরের জলে নিক্ষেপ করে। মৈত্র মহাশয় নিমজ্জমান সন্তানটিকে উদ্ধারের প্রচেষ্টায় নবীবক্ষে ঝাঁপ দেন ও মৃত্যুবরণ করেন।

এই নৃত্যনাট্যের কোরিওগ্রাফী, পোষাক পরিকল্পনা নৃত্য পরিচালনায় রয়েছেন ল্যাডলী মোহন মৈত্র এবং সঙ্গীত পরিচালনা করছেন সুমন সরকার। বিভিন্ন ভূমিকায় দেখা যাবে নৈঋতা, কাবেরী, নিপা, ল্যাডলী, আলো, ইমরান’সহ আরও অনেককে।

সাতদিন/এমজেড/২৯জানুয়ারি২০১৫


প্রদর্শনী

 >  Last ›