চায়ের চুমুকে’র অতিথি

কবি আসাদ চৌধুরী

১১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৭টা ৩০ মি: এটিএন বাংলা

উপস্থাপনা: তানজিনা তিশা ও ইমতু
গ্রন্থনা: ফয়সাল মাহমুদ
পরিচালনা: মোশতাক হোসেন মাশুক

১১ ফেব্রুয়ারি দেশবরেণ্য কবি ও সাহিত্যিক আসাদ চৌধুরী’র জন্মদিন। ১৯৪৩ সালের এই দিনে তিনি বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার উলানিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। সাহিত্য চর্চার পাশাপাশি মনোগ্রাহী টেলিভিশন উপস্থাপনা ও আবৃত্তির মাধ্যমেও মানুষের মন জয় করেছেন এই সর্বজনশ্রদ্ধেয় সাহিত্যিক। বাংলা একাডেমি পুরস্কার, একুশে পদক, কবিতা পরিষদ পুরস্কার’সহ বহু উপাধী ও সম্মানে ভূষিত হয়েছেন তিনি। বর্তমানে বাংলা সাহিত্যের গুরুত্বপূর্ণ জীবিত কবিদের মধ্যে তাঁর নাম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তিনি আসছেন এটিএন বাংলার নিয়মিত আড্ডা-আলোচনার অনুষ্ঠান ‘চায়ের কাপে’র অতিথি হয়ে।

বরিশালের বিখ্যাত ব্রজমোহন কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক সম্পন্ন করেন কবি আসাদ চৌধুরী। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া কলেজের শিক্ষক হিসেবে কর্ম জীবন শুরু করেন তিনি। পরবর্তীতে সাংবাদিকতাকেই পেশা হিসেবে নেন। বাংলা একাডেমিতে চাকরি করেছেন দীর্ঘকাল এবং একাডেমির পরিচালক হিসেবেই অবসর গ্রহণ করেণ কবি আসাদ চৌধুরী।

কবি আসাদ চৌধুরীর লেখা কাব্যগ্রন্থের মধ্যে রয়েছে—‘তবক দেওয়া পান’, ‘জলের মধ্যে লেখাজোখা’, ‘মধ্য মাঠ থেকে’, ‘মেঘের জুলুম পাখির জুলুম’, ‘ভালোবাসার কবিতা’, ‘নদীও বিবস্ত্র হয়’, ‘বাতাস যেমন পরিচিত’, ‘ঘরে ফেরা সোজা নয়’ ইত্যাদি। তাঁর সম্পাদনায় প্রকাশিত হয় ইতিহাস বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ’। তিনি শিশুদের জন্যও প্রচুর বই লিখেছেন। এ ছাড়া রয়েছে তাঁর বেশ কিছু প্রবন্ধ। অনুবাদ সাহিত্যেও কবি আসাদ চৌধুরী অবদান রেখেছেন।

‘চায়ের চুমুকে’ অনুষ্ঠানটিতে অতিত জীবনের স্মৃতিচারণ, বর্তমান বাংলা সাহিত্য ও ভাষা সম্পর্কিত ভাবনা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কথা বলবেন কবি আসাদ চৌধুরী। ফয়সাল মাহমুদের গ্রন্থনা এবং মোশতাক হোসেন মাশুকের পরিচালনায় অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করছেন তানজিনা তিশা ও ইমতু।

সাতদিন/এমজেড/১০ফেব্রুয়ারি২০১৫


আড্ডা ও আলোচনা

 >  Last ›