সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মি, ১ এপ্রিল, একুশে টেলিভিশন

তথ্যচিত্রের অনুষ্ঠান: ওয়ার্ল্ড স্টোরিস

প্রযোজক : সাখাওয়াৎ লিটন
উপস্থাপনা : সাখাওয়াৎ লিটন

এবারের আয়োজন:

-জিম্বাবুয়ের ভূমি সমস্যা ও কর্মক্ষেত্রে নারীদের বৈষম্যের কথা
-মধ্যপ্রাচ্যে বর্জব্যবস্তাপনার মাধ্যমে নিজেদের পরিবেশ রক্ষার চিত্র
-ভিয়েতনামের একজন ডিজাইনারের কাগজ দিয়ে পরিধেয় কাপর তৈরির প্রকৃয়া
-রান্নার জন্য বিখ্যাত চিলির ভিনা ডেল মার শহরের গল্প

জার্মানীর ডয়েচে ভেলে টেলিভিশনে ‘ওয়ার্ল্ড স্টোরিস’ অনুষ্ঠানটি ইংরেজী, আরবী, স্প্যানিশ প্রভৃতি ভাষায় প্রচারিত হয়। একুশে টেলিভিশন বাংলায় এ অনুষ্ঠান প্রচারের মাধ্যমে দেশ ও বিশ্বকে দেশের মানুষের সামনে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ দেখানো হবে চারটি প্রতিবেদন। এবারের পর্বে থাকছে জিম্বাবুয়ে, মধ্যপ্রাচ্য, ভিয়েতনাম ও চিলি নিয়ে প্রতিবেদন।

ভূমি মালিকানা জিম্বাবুয়ের অন্যতম একটি বিতর্কিত বিষয়। ১৯৭৯ সাল পর্যন্ত সে দেশের বেশিরভাগ জমির মালিকানা ছিল প্রভাবশালী শ্বেতাঙ্গদের দখলে। ফলে কৃষ্ণাঙ্গরা তাদের অধিকার আদায়ে এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করে আসছিল। কিন্তু শুধু ভূমি সমস্যাই একমাত্র বিষয় নয়। খনিজ সম্পদ উত্তোলনের সাথে জড়িত নারী শ্রমিকরাও ছিল বৈষম্যের শিকার। ইউ এন টিভির মেরি ফেরেইরা জানাচ্ছেন বিস্তারিত।

বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিশ্বের অনেক দেশ এগিয়ে গেছে। কিন্তু এখনও অনেক শহর রয়েছে যাদের বর্জ্যকে পুনর্ব্যবাহার উপযোগী করে তোলার তেমন কোন ব্যবস্থা নেই। বিশ্ব ব্যাংকের এক হিসেবে যার পরিমান প্রতি বছরে প্রায় এক দশমিক তিন বিলিয়ন টন। সংযুক্ত আরব আমিরাতে এর পরিমাণ প্রতি দিন মাথাপিছু দুই দশমিক পাঁচ কেজির মত। বর্তমানে তারা বর্জ্য ব্যবস্থাপনার উপর গুরুত্ব দিয়েছে যা শারজাহ থেকেও ভাল কাজ করছে। ক্রিস্টিন এলসায়েসার জানাচ্ছেন বিস্তারিত।

১৯৬০ সালের দিকে যুক্তরাষ্ট্রে সর্বপ্রথম কাগজের তৈরি পোশাকের প্রচলন হয়। তবে পরবর্তীতে তারা এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারে নি। কারণ কাগজের তৈরি এই পোশাক আরামদায়ক ছিলনা। কিন্তু প্রযুক্তির আশীর্বাদে এই পোশাক বর্তমানে একটি ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। ভিয়েতনামের ভেলে টেলিভিশনের প্রতিবেদক হুয়াই লউং পরিচয় করিয়ে দেবেন একজন ডিজাইনারের সাথে যিনি এ পোশাককে স্থানীয় ব্র্যান্ডে পরিণত করতে সচেষ্ট হয়েছেন।

মুখরোচক খাবারের প্রতি কার না লোভ জাগে। আর তাই এখন আমরা চিলির ঐতিহ্যবাহী কিছু খাবারের স্বাদ নিতে চিলির ভিনা ডেল মার শহরে যাবো। কারন সাম্প্রতিক সময়ে এ অঞ্চলটি রন্ধন শিল্পের কেন্দ্র হিসেবে খ্যাতি লাভ করেছে। যেখানে আপনি সুস্বাদু ঐতিহ্যবাহী চিলিয়ান খাবারের স্বাদ নিতে পারবেন। ইউ সি ভি টেলিভিশনের মালিনা রোড্রিগেজ জানাচ্ছেন বিস্তারিত।

সাতদিন/এমজেড

১ এপ্রিল ২০১৫

ডকুমেন্টারি

 >  Last ›