রাত ১১টা ৪৫ মি, ঈদের ৬ষ্ঠ দিন, চ্যানেল নাইন

তানভীর মোকাম্মেল পরিচালিত

চলচ্চিত্র: লালন

অভিনয়: রইসুল ইসলাম আসাদ, শমী কায়সার, আজাদ আবুল কালাম


উপমহাদেশের বিখ্যাত বাউল সাধক লালন শাহ্‌-এর জীবন ভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘লালন’। তানভীর মোকাম্মেলের পরিচালনায় চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয় ২০০৪ সালে। সিনেমায় ফুটে উঠেছে লালনের সময়কার সামাজিক পরিস্থিতি, লালনের সংগ্রাম ও দর্শন, বাউলদের জীবন যাপন ইত্যাদি বিষয়। এতে লালনের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রইসুল ইসলাম আসাদ। ১২০ মিনিট দৈর্ঘের এই সিনেমাটির সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন সৈয়দ শাহাব আলী আর্য।


লালনের জীবন সম্পর্কে স্পষ্টভাবে খুব বেশি কিছু জানা যায় না। তবে কতিপয় প্রখ্যাত বাঙালি ব্যক্তিত্ব লালনের সংস্পর্শে এসেছিলেন বলে জানা যায়। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাঙ্গাল হরিনাথ ও মীর মোশাররফ হোসেন। তাঁদের কাছ থেকে পাওয়া অল্প তথ্যের ভিত্তিতে এবং লালনের গান থেকে তাঁর সম্পর্কে যতটুকু ধারনা করা যায় তার ভিত্তিতেই তানভীর মোকাম্মেলের সিনেমা ‘লালন নির্মিত হয়।

লালনের জন্ম ১৭৭৪ সালে এবং মৃত্যু ১৮৯০ সালে। তিনি ছিলেন একাধারে বাউল সাধক, গীতিকার, সুরকার, সমাজ সংস্কারক এবং দার্শনিক। তিনি জাতি-ধর্ম ও বর্ণের ঊর্ধে স্থান দিয়েছিলেন মানবতাকে। সকল প্রকার বিভেদ ও শোষণের তিনি বিরোধিতা করেছিলেন। এ কারণে তাঁকে সইতে হয়েছে অপমান ও গঞ্জনা।
বৌদ্ধ তান্ত্রিক দর্শন, বৈষ্ণব দর্শন, মুসলিম সুফিবাদ ইত্যাদির প্রভাবে গড়ে উঠেছে লালনের নিজস্ব দর্শন। তিনি তাঁর গানের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন তাঁর মতবাদ। এই সব গান যুগ যুগ ধরে এ দেশের মানুষকে শুভ কাজে প্রেরণা যুগিয়ে এসেছে।

সিনেমায় অন্যান্য ভূমিকায় ছিলেন শমী কায়সার, আজাদ আবুল কালাম, তামান্না ইয়াসমিন তিথি, চিত্রলেখা গুহ, রামেন্দু মজুমদার প্রমূখ।

২৩ জুলাই ২০১৫

মুভি

 >  Last ›