তিলোত্তমা, তোমার জন্য...

২১ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টা ২০মি আর টিভি

রচনা সারোয়ার রেজা
পরিচালনা তুহিন হোসেন
অভিনয় নুসরাত ইমরোজ তিশা, আরফান নিশো

নাটকে দেখা যাবে, শফিক জেনারেশন ওয়াই এর ছেলে। ফ্যাশন দুরস্ত। নামী প্রাইভেট ইউনিভার্সিটিতে পড়ে। বন্ধুরা ডাকে শ্যাফস্ নামে। শফিকের ঘনিষ্ঠ দুই বন্ধু নাদের আর জুনায়েদ- যাদের নামও সংক্ষেপ করতে গিয়ে ন্যাডস আর জুনস্ হয়েছে। এরা বাইক নিয়ে ঘোরে। হ্যালোইন পার্টি করে। ফেইসবুকের ডেসপারেটলি সিকিং ঢাকা গ্রুপে পোস্ট দেয়- ‘গশ্! মাই জিপ গট স্টাক, অ্যান্ড মাই জিএফ গনা কাম শর্টলি! হোয়াট টু ডু???’... ইত্যাদি। মাঝে মাঝে রাইস বাকেট চ্যালেঞ্জ করে সেলফি তুলে ফেইসবুকে আবেগে জবজবে পোস্ট দিয়ে বলে-‘স্ট্রিট চিলড্রেনগুলো যে কি কিউট! অ্যাত্তগুলা মায়া লাগে!’

শফিকের জীবনে আচমকা একটা ছন্দপতন হয়, যখন নিচের ফ্ল্যাটে তিলোত্তমা’রা ভাড়া আসে। তিলোত্তমা তার নামের মতোই সুন্দর, স্নিগ্ধ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজিতে পড়ে। শফিকের কিছু একটা হয়ে যায় তাকে দেখতে দেখতে। এরকম আগে কখনো হয়নি। বন্ধুরা বলে, সে প্রেমে পড়েছে।

শফিক তিলোত্তমার সঙ্গে ভাব জমানোর চেষ্টা করে। তিলোত্তমা খুব সহজভাবে মেশে, বন্ধুর মতো। ক্রমশ শফিক বুঝতে পারে এই মেয়েটি আর দশ জনের থেকে একদম আলাদা। নিজে ইংরেজিতে পড়লেও প্রায় কখনোই অকারণে ইংরেজি শব্দ ব্যবহার করে কথা বলেনা। ঝকঝকে উচ্চারণে বাংলা বলে। বাংলাও যে ‘স্মার্ট’ শোনাতে পারে, এর আগে শফিক কখনো বোঝেনি। কিন্তু শফিকের অ্যাংলিসাইজ ভাষা আর আচরণে তিলোত্তমার বিন্দুমাত্র আগ্রহ নেই। বরং একটা প্রচ্ছন্ন অবজ্ঞা থাকে যেন। শফিকের অ্যাতোদিনের জানা ‘কুল’ ধারণায় একটা বড়সড় ধাক্কা হয়ে আসে তিলোত্তমা।

একদিন তিলোত্তমা কথায় কথায় শফিককে ‘মর্কট’ বললে শফিক জানতে চায় ওটার মানে কী। তিলোত্তমা বলে, জেনে নাও। শফিক বন্ধুদের জিজ্ঞেস করে। কেউ বলতে পারেনা। একজন পরামর্শ দেয় ‘বেঙ্গালি ডিকশনারি’ দেখতে। শফিক বাংলা অভিধান কিনে আনে। মানে দেখে। পরদিন তিলোত্তমা আবারও একটা অদ্ভুত শব্দে শফিককে বিভ্রান্ত করে দেয়। শফিক আবারও বাসায় গিয়ে অভিধান ঘেঁটে অর্থ বের করে। এভাবে বেশ কিছুদিন চলে। দেখা যায় শফিক সবসময় ব্যাগে ভ’রে অভিধানটি সঙ্গে নিয়ে ঘুরতে শুরু করেছে। তিলোত্তমা অদ্ভুত কোনো শব্দ বললেই সঙ্গে সঙ্গে অভিধান খুলে অর্থ দেখে নেয় সে। তিলোত্তমা মজা পায়।

আর শফিক হঠাৎ-ই খেয়াল করতে শুরু করে চারপাশে ইংরেজি নিয়ে কত ধরণের আদিখ্যেতা চলছে। যেমন. মা তার ছোট বাচ্চাটিকে বলছে- বেবি! এটা ড্রিংক করো। নাহলে কিন্তু তোমাকে প্লে করতে দিবো না!’ আগে তো কখনো এভাবে চোখে পড়েনি! বদলে যেতে থাকে শফিক।

মহান একুশে ফেব্রুয়ারীতে আরটিভিতে প্রচার হবে নাটক তিলোত্তমা, তোমার জন্য...।
সারোয়ার রেজা রচনা ও তুহিন হোসেনের পরিচানায় নাটকে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, আরফান নিশোসহ প্রমূখ।

নাটকটি প্রচার হবে ২১ ফেব্রুয়ারি, শনিবার, রাত ৮টা ২০ মিনিটে।


নাটক

 >  Last ›