১৬ থেকে ২৩ মে, আঁলিয়স ফ্রঁসেজ দ্য ঢাকা

জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে

আলোকচিত্র ও প্রামাণ্যচিত্রের প্রদর্শনী

এজেন্সি ফ্রান্স ডি ডেভেলপমেন্ট (ফরাসি উন্নয়ন সংস্থা), আঁলিয়স ফ্রঁসেজ দ্য ঢাকা এবং ঢাকাস্থ ফরাসি দূতাবাসের উদ্যোগে ‘জলবায়ু পরিবর্তন ও উন্নয়নের সেতুবন্ধন’ (Bridging Climate Change and Development) শীর্ষক ধারাবাহিক আয়োজন করা হয়েছে যাতে থাকছে আলোচনা, সেমিনার ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী। ঢাকার ধানমণ্ডিতে অবস্থিত আঁলিয়স ফ্রঁসেজে অনুষ্ঠিতব্য এই আয়োজনের অংশ হিসেবে থাকছে দুটি আলোচিত্র প্রদর্শনী, ৩টি প্রামাণ্যচিত্রের প্রদর্শনী এবং তিনটি আলোচনা সভা। ১৬ মে থেকে ২৩ মে পর্যন্ত চলবে এই আয়োজন। মাননীয় ফরাসী রাষ্ট্রদূত জনাবা সোফি ওবের ১৬ মে দুপুর ১টায় সূচনা আসরে সভাপতিত্ব করবেন। আয়োজনটি সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

আয়োজনের অন্যতম আকর্ষণ আলোকচিত্র প্রদর্শনী দুটি ১৬ থেকে ২৩ মে পর্যন্ত চলবে। প্রদর্শনী দুটো হল ফরাসী আলোকচিত্র শিল্পী ইয়ান আরথাস-বারট্রান্ড-এর ‘জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে ষাটটি সমাধান’ এবং নবীন আলোকচিত্র শিল্পী জুল তুলে’র ‘জলবায়ু পরিবর্তনে স্থানিক প্রতিক্রিয়া’। আরথাস-বারট্রান্ড জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করছেন। তাঁর সিরিজের নাম ‘ওপর থেকে পৃথিবী’। তিনি জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব দেখেছেন সারা পৃথিবী ঘুরে। অপরদিকে জুল তুলে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তের ছবি তুলেছেন সাদা-কালোয়। তুলে চেয়েছেন তাঁদের ছবি তুলতে যারা জলবায়ু পরিবর্তনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে অথচ যাদের কোনো দায়ই নেই। তাঁর তোলা ২০টি ছবি থাকছে প্রদর্শনীতে।

এই আয়োজনে প্রদর্শিত হবে ইয়ান আরথাস বারট্রান্ড-এর ‘তৃষ্ণার্ত বিশ্ব’, গ্লেন বাকের-এর ‘পানির মতো সোজা’ এবং কামার আহমদ সাইমন ও সারা আফরিন-এর ‘শুনতে কি পাও’ শিরোনামের চলচ্চিত্র।

এই আয়োজনের প্রথম বৈঠক ‘উন্নয়ন ও জলবায়ু পরিবর্তন সমন্বয়’। নিত্যকার রাজনৈতিক, সামাজিক এবং অর্থনৈতিক উন্নয়ন কার্যক্রমগুলোকে জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ করার উপায় খুঁজবে এ বৈঠক। উন্নয়ন মডেলগুলো যেন জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সংকটকে ত্বরান্বিত না করে তার ওপর আলোকপাত করবেন বক্তারা। ড. কাজী খলিকুজ্জামান আহমদ (সভাপতি, গভর্নিং কাউন্সিল ও রেক্টর, ঢাকা স্কুল অব ইকনমিকস), ড. আইনুন নিশাত (উপ-উপাচার্য, ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়), জনাব তাকসেম এ. খান (ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ঢাকা ওয়াসা), ড. আতিক রহমান (নির্বাহী পরিচালক, বিসিএএস, বাংলাদেশ সেন্টার ফর অ্যাডভান্সড স্টাডিজ) এবং ড. আহসান উদ্দিন আহমেদ ( সেন্টার ফর গ্লোবাল চেঞ্জের নির্বাহী পরিচালক) প্রমুখ অংশ নেবেন বৈঠকে। বৈঠক পরিচালনা করবেন জনাব কামরুল চৌধুরী (সভাপতি, বাংলাদেশ পরিবেশ সাংবাদিক ফোরাম)।

দ্বিতীয় বৈঠকের শিরোনাম ‘বৈশ্বিক হুমকির স্থানিক সমাধান’। এই বৈঠকে অংশ নেবেন বিশ্বব্যাপী সুখ্যাত বিজ্ঞানী ড. সলিমুল হক (পরিচালক, আন্তর্জাতিক জলবায়ু পরিবর্তন ও উন্নয়ন কেন্দ্র), জনাব মনিরুজ্জামান ( মেয়র, খুলনা সিটি কর্পোরেশন), ড. মো. আনসার আলী ( গবেষণা পরিচালক, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট), ড. শরীফুল ইসলাম (অধ্যাপক, বুয়েট) এবং জনাবা ফারহানা শারমীন ( প্রোগ্রাম ম্যানেজার, প্রাকটিক্যাল অ্যাকশন)। ঢাকা ট্রিবিউনের সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার জনাব আবু বকর সিদ্দিক বৈঠক পরিচালনা করবেন।

‘ব্যবসা এবং জলবায়ু পরিবর্তন: প্রাইভেট সেক্টরে প্রস্তুতি’ শীর্ষক তৃতীয় বৈঠকের লক্ষ্য হল, কিভাবে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলো জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি ত্বরান্বিত করছে সেটা তুলে ধরা। আলোকপাত করা হবে প্রতিষ্ঠানগুলো এর মোকাবিলায় কী কী প্রস্তুতি নিচ্ছে বা নিতে পারে। বৈঠকে অংশ নেবেন হার এক্সিলেন্সি জনাবা সোফি ওবের ও জনাব জ্যঁ-মার্ক লেঙ্গার্ড (ব্যবসা উন্নয়ন ব্যবস্থাপক, ইন্ডিয়ান সাব কন্টিনেন্ট, সুয়েজ এনভায়রনমেন্ট), জনাব মুজিবুর রহমান (বিক্রয় ও বিপণন প্রধান, টোটাল বাংলাদেশ), জনাব আব্দুর রায়হান (প্রধান, বিজনেস কন্টিনিউটি ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ক্লাইমেট্ চেইঞ্জ, গ্রামীণফোন এবং জনাব হাসিব উদ্দিন ( চেয়ারম্যান, এপিএস গ্রুপ)। বৈঠক পরিচালনা করবেন ড. আতিক রহমান (নির্বাহী পরিচালক, বিসিএএস, বাংলাদেশ সেন্টার ফর অ্যাডভান্সড স্টাডিজ)

উল্লেখ্য, এ বছর ডিসেম্বর মাসে ফ্রান্সে অনুষ্ঠিতব্য জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক ২১তম আন্তর্জাতিক সম্মেলন COP-21’কে সামনে রেখে আয়োজন করা হয়েছে।

সাতদিন/এমজেড

১৬ মে ২০১৫

প্রদর্শনী

 >  Last ›