রাত ৮টা, ১৯ মে এবং সকাল ৮টা ১৫ ও বিকাল ৪টা, ২০ মে, বৈশাখী টিভি

শুধুই আড্ডা’র অতিথি

কবি হেলাল হাফিজ

প্রযোজনা: পলাশ মাহবুব
উপস্থাপনা: নাবিলা


‘এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়, এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’। কবি হেলাল হাফিজের লেখা ‘নিষিদ্ধ সম্পাদকীয়’ কবিতার এই লাইনগুলো পড়েননি বা শোনেননি এমন শিক্ষিত বাঙালি খুব কমই পাওয়া যাবে। কবি হেলাল হাফিজ এমন একজন কবি যিনি খুব অল্প লিখেও বাঙালির মন জয় করে নিয়েছেন। ১৯৮৬ সালে তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘যে জলে আগুন জ্বলে’ প্রকাশিত হয়। এরপর তাঁর দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘কবিতা একাত্তর’-‌এর জন্য কবিতা পাঠকদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ২০১২ সাল পর্যন্ত। বাংলা সাহিত্য জগতের জীবীত কবিদের মধ্যে অন্যতম এই কবিকে দেখা যাবে বৈশাখী টেলিভিশনের নিয়মিত আড্ডা-আলোচনার অনুষ্ঠান ‘শুধুই আড্ডা’ আনুষ্ঠানে।


১৯৪৮ সালের ৭ অক্টোবর নেত্রকোনায় জন্মগ্রহণ করেন হেলাল হাফিজ। উচ্চশিক্ষার্থে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ পাকিস্তানী বাহিনীর হামলার সময় তিনি অলৌকিক ভাবে বেঁচে যান। ১৯৭২ সালে তিনি ছাত্র আবস্থায় সাংবাদিকতা শুরু করেন। বাংলা একাডেমি পুরস্কার’সহ বহু পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন এই কবি। ‘শুধুই আড্ডা’ অনুষ্ঠানে তিনি জানাচ্ছেন তাঁর সাহিত্য চর্চা, ব্যক্তিজীবন, পছন্দ-অপছন্দ, বর্তমান ব্যস্ততা ইত্যাদি নানান বিষয়।

পলাশ মাহবুবের প্রযোজনায় ‘শুধই আড্ডা’ অনুষ্ঠানটি বৈশাখী টেলিভিশনে প্রচারিত হয় সপ্তাহের প্রতি মঙ্গলবার রাত ৮টায় এবং পুনঃপ্রচার করা হয় পরদিন বুধবার সকাল ৮টা ১৫ মিনিট ও বিকাল ৪টায়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করছেন জনপ্রিয় মডেল অভিনেত্রী নাবিলা।

সাতদিন/এমজেড

১৯ মে ২০১৫

আড্ডা ও আলোচনা

 >  Last ›