রাত ৯টা, ৬ জুন, মাছরাঙা টিভি

আলোর ভূবনে করুণাময় গোস্বামী

শিল্পী: শারমিন সাথী ইসলাম

উপস্থাপনা: অদিতি মহসিন
প্রযোজনা: স্বীকৃতি প্রসাদ বড়ুয়া


প্রখ্যাত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী অদিতি মহসিনের উপস্থাপনায় মাছরাঙা টেলিভিশনে প্রচারিত হচ্ছে ভিন্নধর্মী আড্ডার অনুষ্ঠান ‘আলোর ভূবনে’। অনুষ্ঠানটির প্রতি পর্বে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক জগতের একজন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে আমন্ত্রন জানানো হয়। অতিথির সাথে চলে সংগীত সম্পর্কিত নানা বিষয়ে আড্ডা। সেই সাথে অতিথির পছন্দের গান গেয়ে শোনাতে স্টুডিওতে উপস্থিত থাকেন একজন গুণী সংগীতশিল্পী। অনুষ্ঠানের এবারের পর্বে অতিথি হিসেবে থাকছেন প্রখ্যাত সংগীতজ্ঞ ও সংগীত গবেষক করুণাময় গোস্বামী। তাঁর পছন্দের গান গেয়ে শোনাতে স্টুডিওতে উপস্থিত থাকবেন প্রথিতযশা নজরুলগীতির শিল্পী শারমিন সাথী ইসলাম যিনি ভক্তদের কাছে ময়না নামে পরিচিত।


১৯৪৩ সালে ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণ করা এই সংগীত গবেষক বাংলা একাডেমি কর্তৃক প্রকাশিত ‘সংগীত কোষ’সহ ২০টি গবেষণা গ্রন্থ রচনা করেছেন। এ ছাড়া ১১টি গ্রন্থের সম্পাদনা, ৩টি অনুবাদ’সহ বাংলাদেশের সংগীত গবেষণার ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রেখেছেন। ইংল্যান্ড ও আমেরিকা থেকে প্রকাশিত সংগীত বিশ্বকোষের যে অংশে বাংলা গান নিয়ে আলোচনা রয়েছে সেই অংশটি তিনি রচনা করেছেন। নিউইয়র্ক থেকে ১৯৯৯ সালে প্রকাশিত ‘গার্লেন্ড এনসাইক্লোপিডিয়া অফ মিউজিক’-এর ৫ম খণ্ডে অন্তর্ভুক্ত বাংলা গানের ক্রমবিকাশ সংক্রান্ত অংশটি তিনিই রচনা করেন। বাংলা গানের ইতিহাস নিয়ে তাঁর আরেকটি বিশাল কাজ ‘হিস্ট্রি অফ বেঙ্গল মিউজিক ইন সাউন্ড’। এটি ঢাকা থেকে প্রকাশিত একটি অডিও হিস্ট্রি।

অপরদিকে, ভক্তদের কাছে ‘ময়না’ নামে পরিচিত কুমিল্লার মেয়ে শারমিন সাথী ইসলামের জন্ম ১৯৭৫ সালে। শ্রীমতী অলকা দাসের কাছে তাঁর সংগীতে হাতেখড়ি। ছায়ানট সংগীত বিদ্যায়তন থেকে নজরুলসংগীতের ওপর পাঁচ বছরের কোর্স করেন তিনি। এ সময় সংগীতগুরু ওয়াহিদুল হকের সান্নিধ্য পেয়েছেন তিনি। বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী সুমন চৌধুরীর কাছে তিনি হিন্দুস্থানি শাস্ত্রীয় সংগীত এবং নজরুলসংগীতের ওপর দীক্ষা নেন। ১৯৯০ সালে ময়না আনন্দধ্বনি নামে একটি প্রতিষ্ঠানে যোগদান করেন। ২০০৭ সাল থেকে তিনি নজরুলসংগীতশিল্পী পরিষদের সদস্য। ময়না বর্তমানে ছায়ানট সংগীত বিদ্যায়তনে শিক্ষকতায় রত।

সাতদিন/এমজেড

৬ জুন ২০১৫

আড্ডা ও আলোচনা

 >  Last ›