দুপুর ২টা ৩০ মি, ঈদের ৪র্থ দিন, চ্যানেল আই

টেলিফিল্ম: দি কাকলী অপেরা

রচনা: বৃন্দাবস দাস
পরিচালনা: শাহনেওয়াজ কাকলী
অভিনয়: ফজলুর রহমান বাবু, চঞ্চল চৌধুরী, রিচি সোলায়মান


চ্যানেল আইতে ঈদুল ফিতরের চতুর্থদিন দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে প্রচার হবে টেলিফিল্ম দি কাকলী অপেরা। বৃন্দাবস দাসের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন শাহনেওয়াজ কাকলী। অভিনয়ে ফজলুর রহমান বাবু, চঞ্চল চৌধুরী, রিচি সোলায়মান, প্রাণ, মামুনুর রশীদ, মেঘলা, বড়দা মিঠু, সুজাত শিমুল, ইকবাল প্রমুখ।

সুরেলা কণ্ঠের অধিকারী মজিদ যাত্রাদলের বিবেকের চরিত্রে অভিনয়ের সুবাদে এলাকায় পরিচিত হয় বিবেক মজিদ নামে। যাত্রাদল বন্ধ হয়ে যাওয়া বেকার মজিদ অসহায় আশ্রয়হীন প্রিন্সেস নমিতাকে তার বাড়িতে নিয়ে এসেছিল বিবেক মজিদ। বিবাহর প্রচলিত বন্ধনের বাইরে গিয়ে শিল্পীকে আশ্রয় দেবার সংকল্প থাকলেও সমাজের কিছু অতি উৎসাহী কুটচক্রী মানুষের নানা ধরণের চাপে তাকে বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছিল। তবে এখনও তার ধর্ম পরিচয় নিয়ে মানুষের আগ্রহের কমতি নাই। একদা যে মজিদ তার গানের সুরে মানুষকে মুগ্ধ করত সেই শিল্পীর বর্তমান পেশা রিকশা ভ্যান চালানো। ভ্যান চালালেও তার বুকের মধ্যে যাত্রার সংলাপ আর সুর বয়ে চলে নিরন্তর। কিছুদিন হয় বিবেকের আর এক সহকর্মী ধেনু এসে আশ্রয় নিয়েছে বিবেকের বাড়িতে। তবলচি ধেনু নমিতার প্রেম প্রত্যাশী ছিল। বিষয়টি নমিতার পছন্দ না হলেও বিবেক উদারতা দিয়ে তাকে গ্রহণ করেছে। ধেনু কোনো কাজ করে নাÑ সারাদিন প্রায় বাড়িতেই থাকে। সুযোগ পেলেই নমিতার কাছে নানাভাবে তার বিরহ প্রকাশ করে থাকে।

গ্রামের প্রভাবশালী মধু খান প্রিন্সেস নমিতার প্রতি আকৃষ্ট হয়Ñ কিন্তু মজিদ তাকে বিয়ে করে ফেলায় তার ক্ষোভ বৃদ্ধি পায়। নানারকম ইস্যু সৃষ্টি করে গ্রামের মানুষকে মজিদ এবং নমিতার বিরুদ্ধে ক্ষেপিয়ে তোলার চেষ্টা করে। এসব ঘটনায় নমিতা নিজেকে খুব অপরাধী ভাবতে থাকে। মজিদের প্রতিকার তার ভালোবাসার কারণে একদিন পুরনো যাত্রাদলের অধিকারীর প্রস্তাবে মজিদের ঘর ছেড়ে চলে যায়। মজিদ ভীষণ আঘাত পায়। তার গানের সুর থেকে যায়। শোনা যায় না যাত্রার সংলাপও। বিবেক শিল্পী মজিদ যেন সত্যি সত্যি নিজেকে ভ্যানচালাক ভাবতে শুরু করে।

২১ জুলাই ২০১৫

নাটক

 >  Last ›