সন্ধ্যা ৭টা ৩০মি, ঈদের ৪র্থ দিন, চ্যানেল নাইন

বিশেষ নাটক: দ্যা মিস্ট্রি অফ টাইম

রচনা: মাসুম শাহরীয়ার
পরিচালনা: গোলাম মুক্তাদির
অভিনয়: আনিসুর রহমান মিলন, ফারাহ রুমা

গল্পের শুরতে আমরা দেখি, একজন সাইকিয়ার্ট্রস্টি দর্শকদের প্যারাসাইকোলজির একটা ঘটনা বর্ণনা করছেন। মুহিবের ঘুম ভাঙে বৃষ্টির শব্দে। মুহিব প্রথমে বুঝতে পারে না সে কোথায় আছে। তারপর ধরফর করে উঠে বসে। ঘরটা ওর অচেনা। মাকে চিৎকার করে ডাকে। (মুহিবের বয়স ৩২। এখনো বিয়ে করেনি। ভালোবাসার মেয়েটি ক’দিন আগেই ওকে ছেড়ে চলে গ্যাছে। গত এক মাস ধরে সে খুব একা। তেমন একটা কথাবার্তা কারো সঙ্গে বলে না। ভেতরে ভেতরে রুপার প্রতি তীব্র অভিমান। ৯ বছরের প্রেম রুপার একদিনের সিদ্ধান্তে ভেঙে গেলো। রুপা আমেরিকা প্রবাসী এক ছেলেকে বিয়ে করে ফেললো)। মুহিবের চিৎকার শুনে ঘরে ঢুকে সাত বছরের একটা মেয়ে। মেয়েটর নাম বৃষ্টি। মুহিব জানতে চায়, তুমি কে?’ মুহিবের প্রশ্ন শুনে বৃষ্টি খিল খিল করে হাসে। ওর বাবা মাঝে মাঝেই ওকে এমন প্রশ্ন করে। কিন্তু রুপাকে এই বাড়িতে দেখে মুহিব চমকে ওঠে। মনের মধ্যে হাজারটা প্রশ্ন। কিন্তু রুপা যখন বলে ওর নাম শিলা, মুহিব অবাক হয়ে তার মুখের দিকে তাকিয়ে থাকে। মুহিব ধীরে ধীরে জানতে পারে, রুপার মতো দেখতে শিলা নামের মেয়েটি ওর স্ত্রী। ওদের আট বছরের সংসার। হঠাৎ দেয়ালের ঝুলানো ক্যালেন্ডারের দিকে তাকিয়ে দ্যাখে ১৯৮২। শিলার কাছে জানতে চায়, পুরানো ক্যালেন্ডার কেন?’ শিলা জানায় পূরানো হবে কেন? এটা তো এ বছরেরই ক্যালেন্ডার। এটা ১৯৮২ সাল। তোমার আবার ওই প্রবলেমটা হয়েছে। ডাক্তারকাকুকে খবর দিতে হবে। মুহিবের মাথা এলামেলো হয়ে যায়। এখন ২০১৫ সাল। অথচ এখানে এরা বলছে ১৯৮২। মুহিব বিয়ে করেনি,অথচ এখানে দিব্যি সংসার পেতেছে। পুরো ব্যাপারটা ভাবতেই সারা শরীরে ঘাম দিচ্ছে।

২২ জুলাই ২০১৫

নাটক

 >  Last ›