২৬ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর, ঢাকা থেকে বান্দরবান

বগালেক-কেওকাড়াডং-জাদিপাই ঝর্ণা

বান্দরবানে ভ্রমণ

মাস্টার ট্রাভেলার্স অফ বাংলাদেশ বান্দরবনের বিভিন্ন আকর্ষণীয় স্থানে ভ্রমণের আয়োজন করেছে। ২৬ শে সেপ্টেম্বর রাত ৮টা ৩০ এর নন-এসি বাসে করে বান্দরবানের উদ্দেশ্যে যাত্রার মধ্য দিয়ে এই ভ্রমণ শুরু হবে। ২৭ শে সেপ্টেম্বর ভোর বেলা বান্দরবান পৌঁছানোর পর সেখান থেকে রুমা বাজারে গিয়ে সকালের নাস্তা করা হবে। এরপর রুমা বাজার থেকে আর্মি এবং পুলিশ ক্যাম্পে রিপোর্ট, চান্দের গাড়িতে চড়ে বগা লেকের উদ্দেশ্যে যাত্রা এবং লাঞ্চ। সিয়াম দিদির কটেজে থাকার ব্যবস্থা করা হবে। রাতের বেলাতেও “সিয়াম দিদি”র কটেজে থাকা এবং ডিনারের ব্যবস্থা হবে। ২৮ শে সেপ্টেম্বর খুব ভোরে কেওকারাডং-এর উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেওয়া হবে। পথে পড়বে চিংড়ি ঝর্না।


কেওক্রাডং থেকে “জাদিপাই” এর উদ্দেশ্যে যাত্রা করা হবে। দুপুরে হয়তো শুকনো খাবার খেয়ে থাকতে হবে। তবে বিকেল বা সন্ধ্যা বেলা কেওক্রাডং পৌঁছে মালিক লারা বম’এর হোটেলে খাবারের ব্যবস্থা থাকছে। রাত কাটানোর ব্যবস্থা থাকছে কেওকারাডং এর চূড়ায় সাথে বারবিকিউ। ঐ রাত “সুপার মুন”, এই বছরে শেষ বারের মত চাঁদ পৃথিবীর খুব কাছে চলে আসবে। ২৯ শে সেপ্টেম্বরঃ সকালে সূর্যোদয় দেখে নাস্তা করে বগালাকের উদ্দেশ্যে রওনা দিবে দলটি। বগালেক থেকে জীপে করে রুমা বাজার হয়ে বান্দরবান এবং রাতের বাসে ঢাকা’র উদ্দেশ্যে যাত্রা।


সর্বোচ্চ ৩৬ জন এই ভ্রমণে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। জন প্রতি ৬ হাজার টাকা খরচ পড়বে। আসন নিশ্চিত করতে ৩০৬০ টাকা bKash করতে হবে (রিমন ভাই - ০১৭১২৯২১৯৬০) এই নম্বরে। bKash করেই সাথে সাথে ঐ নম্বরে ফোন করে নিজের নাম এবং Transaction Id জানাবার পরেই আসন নিশ্চিত করা হবে। অথবা সামনা-সামনিও দেখা করে টাকা দেওয়া যাবে। যে কোন তথ্যের জন্যে প্রয়োজনে যোগাযোগ করা যাবে নিম্নোক্ত নাম্বারগুলোতে: রিমন ভাই ০১৭১২৯২১৯৬০,০১৯৭২৯২১৯৬০ এবং মাহাবুব ভাই ০১৬৮৬৪১২৬০৫, ডাঃ জিয়ন – ০১৯১১৭২২০০৭।


সাতদিন/এমজেড

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫